প্রেমের-টানে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকা

প্রেমের-টানে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকা – দেখুন ভিডিও

 

প্রেমের-টানে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকা  :  নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার ঝুনাগাছ চাপানী নামক ইউনিয়নে ঘটেছে এক আশ্চর্যজনক ঘটনা। প্রেমিকের সাথে দেখা করতে এসে চোর সাজলেন প্রেমিকা । আর তাই বাড়ি ফিরে যাবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়ে স্থান নিলেন প্রেমিকের বাড়িতে

 

জানা গেছে যে নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার ঝুনাগাছ চাপানী নামক ইউনিয়নে এই ঘটনা ঘটে। আলিয়া তাবাসসুম(১৫) নামের মেয়েটির বাসা ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নের এক নং ওয়ার্ডে । তার পিতার নাম মোঃ সৈয়দ আলী।

 

মেয়েটি তার বয়ান দিয়ে বলেন যে, একই গ্রামের অধিবাসী মোঃ ছামিনুল ইসলামের ছেলে মো: বিপ্লব হোসেন এর সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। গত শনিবার দিবাগত রাত্রে ছেলেটি তার বাসায় কেউ না থাকায় বাসায় মেয়েটিকে নিয়ে আসে। রাত দশটা থেকে প্রায় রাত দুইটা পর্যন্ত মেয়েটি ছেলেটির ঘরে একসাথে থাকে।

 

তারপরে ছেলেটির মা পাশের ঘরে শব্দ শুনতে পেয়ে ঘুম থেকে উঠে ছেলের ঘরে যায় এবং ছেলেকে ডাকে। ছেলেটি বাইরে বের হয়ে আসে। তখন তারা কোন উপায়ান্তর না পেয়ে চোর চোর বলে চিৎকার করে মেয়েটিকে চোর সাব্যস্ত করার প্রয়াস করে।

 

বিষয়টি জানাজানি হলে ছেলেটির মা ছেলেটিকে বাড়ি থেকে বাইরে পাঠিয়ে দেয় এবং মেয়েটিকে বাড়ি যেতে বলেন। মেয়েটিকে মারধর করেন। অনেক কিছু হওয়ার পরে চারদিক হতে লোক জড়ো হয় সেখানে। সবাই জানাজানি হওয়ার কারণে লোকলজ্জার মুখে পড়ে যায় মেয়েটি। তাই সে আর বাড়ি ফিরে যাবে না বলে প্রতিজ্ঞা করে। যার কারণেই সে তার বাড়িতে অবস্থান নেয় এমনকি তার নিজের সর্বস্ব দিয়ে যেন ছেলেটিকে সে আগলে রাখতে পারে সে প্রচেষ্টায় করে মেয়েটি।

 

কিন্তু ছেলেটি পলাতক, তার হাতে থাকা সোনার আংটি খুলে নিয়েছে ছেলেটি। ছেলেটির মা ছেলেটিকে পালিয়ে যেতে সর্বাত্মক সহযোগিতা করে বলে মন্তব্য করেন মেয়েটি।

 

সারারাত ধরে ছেলেটি তার সাথে ছিল, তার সর্বস্ব কেড়ে নিয়েছে, তাকে নিঃস্ব করেছে, যার ফলে বাড়িতে যাবে না বলে প্রতিজ্ঞা করে মেয়েটি। তাই অবস্থান নিয়েছে ছেলের বাসায়।

 

ন্যায় বিচারের জন্য মেয়েটি ছেলেটির বাড়িতে অবস্থান কেরছে। তার ঘরের বউ হতে চাই বলেছে মেয়েটি।

 

বিস্তারিত ভিডিও দেখুন

About Post Author

Leave a Comment

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: