ফরিদপুরের আলোচিত ১২ বাস পোড়ার ঘটনার মামলায় ৩জন গ্রেফতার

ফরিদপুরের আলোচিত ১২ বাস পোড়ার ঘটনার মামলায় ৩জন গ্রেফতার : দুই হাজার কোটি টাকা পাচার মামলার অন্যতম আসামী বরকত-রুবেলের মালিকানাধীন ১২টি বাসে আগুন দেবার ঘটনার রহস্য উদঘাটনের দাবী করেেেছ পুলিশ। সোমবার বিকেলে ফরিদপুর জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে এ দাবী করে পুলিশ

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা জানান, অর্থপাচার মামলায় সিআইডির জব্দকৃত ১২টি বাসে গত ১২ মার্চ আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় দুবৃর্ত্তরা। এ ঘটনায় পুলিশের তরফ থেকে ব্যাপক অনুসন্ধান চালানো হয়। সোমবার সকালে বাস পোড়ানোর মামলায় সন্দেহভাজন তিন আসামীকে শহরের গোয়ালচামট থেকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো, জহুরুল ইসলাম জনি, পারভেজ মৃধা ও মোহাম্মদ আলী। আসামীরা পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে বাস পোড়ানোর কথা স্বীকার করে। প্রেস ব্রিফিং থেকে জানানো হয়, অর্থ পাচার মামলায় জব্দকৃত বাস গুলোর ইন্স্যুরেন্সের ক্ষতিপূরন ও ব্যাংক লোনের দায় থেকে অব্যাহতি পেতে একটি পক্ষ আটককৃতদের দিয়ে বাসে আগুন দেবার ঘটনা ঘটায়।

আটককৃত আসামীদের অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

গত ১২ মার্চ ফরিদপুরের গোয়ালচামট বিদ্যুৎ অফিসের সামনে একটি সেডে জব্দকৃত ১২টি বাস রাখা ছিল।

এ বাস গুলোর মালিক দুই হাজার কোটি টাকা পাচার মামলার ান্যতম আসামী সাজ্জাদ হোসেন বরকত ও তার ভাই ইমতিয়াজ হাসান রুবেল।

নাজিম বকাউল , ফরিদপুর প্রতিনিধি

About Post Author

Leave a Comment

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: