বন্ধুর শয্যা সঙ্গিনী হতে জোর করেছিলেন প্রাক্তন স্বামী অকপট করিশ্মা

বন্ধুর শয্যা সঙ্গিনী হতে জোর করেছিলেন প্রাক্তন স্বামী অকপট করিশ্মা

 

বন্ধুর শয্যা সঙ্গিনী হতে জোর করেছিলেন প্রাক্তন স্বামী অকপট করিশ্মা   :   সবসময় কৌতূহল তুঙ্গে থাকে সাধারণ মানুষের কাপুর পরিবার ঘিরে । তাঁদের অন্দরমহলের গল্প থেকে তারকাদের ব্যক্তিগত জীবন ঘিরে আগ্রহ রয়েছে নেটিজেনদেরও। দীর্ঘ কয়েক বছর পর এক সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী করিশ্মা কাপুর। তাঁর সিনেমার কেরিয়ার থেকে মা হওয়ার পর জীবন বদলে যাওয়ার গল্প শুনিয়েছেন তিনি। এমনকী বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে অতীতের তিক্ত অভিজ্ঞতাও শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী

দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যেতেই প্রাক্তন স্বামী সঞ্জয় কাপুরের সঙ্গে ১৩ বছরের দাম্পত্যে ইতি টেনেছিলেন করিশ্মা। সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, বিয়ের পর থেকেই সঞ্জয় ও তাঁর পরিবারের সকলে চরম মানসিক নির্যাতন শুরু করেন। মধুচন্দ্রিমায় ঘিয়ে তুমুল অশান্তি করেছিলেন সঞ্জয়। তাঁর বন্ধুর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের জন্যেও জোর করেছিলেন করিশ্মাকে। তাতে মুখের উপর করিশ্মা না বলায় শারীরিক নির্যাতনও করেন তিনি। এখানেই শেষ নয়। সেই বন্ধুর কাছে করিশ্মাকে বিক্রি করে দিতেও চেয়েছিলেন সঞ্জয়।

করিশ্মা আরও জানান, তাঁদের বিয়ের পরেও প্রাক্তন স্ত্রীর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখতেন সঞ্জয়। একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কে জড়িয়েছেন তাঁরা। এর বিরুদ্ধে করিশ্মা প্রতিবাদ করলেও রীতিমতো গায়ে হাত তুললেন সঞ্জয়। এই ধরনের আরও খারাপ কিছু স্মৃতি নিয়ে ২০০২ সালে দিল্লি ছেড়ে মুম্বইতে নিজের বাড়িতে চলে আসেন তিনি। এখানে এসেই ডিভোর্সের কথা জানান করিশ্মা। মেয়ের প্রাক্তন স্বামীকে নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন রণধীর কাপুরও।

About Post Author

Leave a Comment

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: