রাশিয়া চায় চুক্তি ইউক্রেনের দাবি অস্ত্রবিরতি

রাশিয়া ইউক্রেনে ভ্যাকুয়াম বোমা ফেলেছে – মানবাধিকার সংগঠন

 

রাশিয়া ইউক্রেনে ভ্যাকুয়াম বোমা ফেলেছে – মানবাধিকার সংগঠন   :   ক্লাস্টার বোমার পর ভ্যাকুয়াম বোমা। প্রকাশ্যে এল চাঞ্চল্যকর অভিযোগ। একাধিক মানবাধিকার সংগঠন ও আমেরিকায় ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূতের অভিযোগ, ভ্যাকুয়াম বোমও যুদ্ধে ব্যবহার করেছে রাশিয়া। অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ও হিউম্যান রাইটস ওয়াচ নামক দুটি মানবাধিকার সংগঠনের দাবি, ইউক্রেনে নিষিদ্ধ ক্লাস্টার বোমা ব্যবহার করেছে রাশিয়া

ইউক্রেনের উত্তর–পূর্ব প্রান্তে একটি স্কুলে এই ক্লাস্টার বোমা ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে অ্যামনেস্টি। আমেরিকায় ইউক্রেনের রাষ্ট্রদূত ওকসানা মারকারোভা সোমবার মার্কিন কংগ্রেসের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলার পর জানান, ‘‌রাশিয়া ভ্যাকুয়াম বোমা ব্যবহার করেছে। ইউক্রেনের শহরগুলি ধ্বংস করাই রাশিয়ার লক্ষ্য।’‌ ভ্যাকুয়াম বোমার আর এক নাম থার্মোবারিক ওয়েপন। এই বোমা ফাটলে বাতাসে অক্সিজেনের পরিমাণ কমে যায়। বিস্ফোরণ স্থলের আশেপাশে প্রবল তাপ তৈরি হয়।

সিএনএন জানিয়েছে, তাঁদের রিপোর্টারদের একটি দল নাকি দেখেছিল ইউক্রেন সীমান্তে থার্মোবারিক মাল্টিপল লকেট লঞ্চার বসিয়েছে রাশিয়া। এদিকে, হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জন পেস্কি বলেছেন, ‘‌তাঁর কাছেও এরকম তথ্য আছে, যে রাশিয়া ভ্যাকুয়াম বোমা ব্যবহার করেছে।’‌ তবে তিনি এবিষয়ে এখনও পুরোপুরি নিশ্চিত নন। তবে এই বোমা রাশিয়া সত্যিই ব্যবহার করেছে কিনা সে বিষয়ে খোঁজ নেবে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংগঠন। জানিয়েছেন পেস্কি। যদিও ওয়াশিংটনের রুশ দূতাবাস থেক এবিষয়ে এখনও কিছুই বলা হয়নি।

এদিকে ইউক্রেনে অস্ত্র পাঠাচ্ছে আমেরিকা। জো বাইডেনের সঙ্গে কথা হয়েছে আমেরিকায় ইউক্রেন রাষ্ট্রদূত মারকারোভার। তাঁর কথায়, ‘‌রাশিয়াকে এর মূল্য চোকাতে হবে।’‌

About Post Author

Leave a Comment

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: